সংবাদ শিরোনাম
  • সকাল ৯:৪১ | ২১শে আগস্ট ২০১৯ ইং , ৬ই ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৯শে জিলহজ্জ ১৪৪০ হিজরী

মৌলভীবাজারে অর্ধশতাধিক গ্রাম প্লাবিত, লক্ষাধিক মানুষের দূর্ভোগ

সন্ধিপদ ভট্টাচার্য্য,মৌলভীবাজার থেকে:
বন্য পরিস্থিতি অারও অবনতি হয়েছে মৌলভীবাজারে। মনু, কুশিয়ারা, ধলাই, নদী পানি বৃদ্ধি হওয়ায় নতুন করে গ্রাম অঞ্চল বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে।পানি বন্দি কয়েক লক্ষ মানুষ।
পাঃ উঃ বোর্ড জানিয়েছেন ১৫ জুলাই বিকালে মনুনদীর পানি ৮৫ সে. মি., কুশিয়ারা ৫৩ সে.মি ও ধলাই নদীর পানি ২৪ সে. মি. বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।
জানা যায় মৌলভীবাজার এ পর্যন্ত কুশিয়ারা তিনটি ভাংগন দিয়ে পানি প্রবেশ করে উপজেলার মনুমুখ ও খলিলপুর ইউনিয়নের ১৭ গ্রাম এবং কাউয়াদীঘির পানি বৃদ্ধি হওয়ায় অাখাইলকুড়া ইউনিয়ন ৪ টি গ্রাম প্রাহিত হয়েছে।তবে মনু নদীর বাধ ভাঙ্গার খবর পাওয়া যায় নি।
এদিগে হাকালুকি হাওরের পানি বৃদ্ধি হওয়ায় ফলে জাফর নগর পশ্চিম জুড়ি ইউনিয়নের প্রায় ১০টি গ্রাম জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে।
বন্যা মোকাবেলায় ইতিমধ্যে জেলা অাশ্রয় কেন্দ্র খোলা ও ত্রান তৎপরতা শুরু হয়েছে।
জেলা প্রশাসন সুত্রে জানা যায় মৌঃ বাজার সদর উপজেলার ৪ টি অাশ্রয় কেন্দ্র, কমলগঞ্জ ৩ টি ও রাজ নগর ৩ টি অাশ্রয় কেন্দ্র চালু রাখা হয়েছে, প্রয়োজনে অাশ্রয় কেন্দ্র বৃদ্ধি করা হবে।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ অাশরাফুল অালম খান বলেন বন্যা কবলিত প্রত্যেক উপজেলায় বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে। উপজেলা থেকে স্থানীয় প্রতিনিধিরা ত্রান সামগ্রী বন্যার্তদের মাঝে পৌছে দিচ্ছেন।খাদ্য গোদাম রাত পর্যন্ত খোলা রাখা হয়েছে।ত্রানের কোন অভাব নেই।

মোহাম্মদ ফরিদ,কক্সবাজার থেকে: রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে বৈধ কাগজপত্র বিহীন আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থার হয়ে কাজ করছিলেন এমন ১৬ জন বিদেশি নাগরিককে আটক করে র্যাব-৭। ১৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বিকেলে একটি যৌথ চেকপোস্টে...

ফেসবুকে আমাদের সাথে থাকুন



L0go

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

 
Shares