সংবাদ শিরোনাম

বাংলাদেশ দলের টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান এর ভারত সফর অনিশ্চিত

ভারত সফর সামনে রেখে কাল দ্বিতীয় ও শেষ প্রস্তুতি ম্যাচটিও হয়ে গেল মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে। কিন্তু প্রথম ম্যাচের মতো এ ম্যাচেও ছিলেন না বাংলাদেশ দলের টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর কাছ থেকে আগেই ছুটি নিয়েছেন তিনি। কিন্তু পরিস্থিতি যা, ভারত সফরেই সাকিব শেষ পর্যন্ত যান কি না, তা নিয়ে আছে ঘোর সংশয়।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সংশ্লিষ্ট নির্ভরযোগ্য সূত্রের খবর, আইপিএল ও বিপিএলের দুটি ম্যাচকে কেন্দ্র করে সাকিবের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে কাজ করছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। এ নিয়ে করা তদন্তের শেষ পর্যায়ে আছে তারা। তদন্তপ্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে আইসিসির প্রতিনিধিরা সাকিবের সঙ্গে কথা বলেছেন বলেও জানা গেছে। আগামী কয়েক দিনের মধ্যে আইসিসি এ ব্যাপারে কিছু একটা জানাবে বলে জানিয়েছে সূত্র। এ জন্যই সাকিবকে ভারতে পাঠানোর ব্যাপারে দ্বিতীয় চিন্তা করতে হচ্ছে বিসিবিকে। আবার সাকিবের খেলায় বাধা আসতে পারে আইসিসি থেকেও। অবশ্য অন্য একটি সূত্রের দাবি, সাম্প্রতিক ঘটনাবলি এবং বিসিবি সভাপতির বিভিন্ন বক্তব্যের কারণে সাকিব নিজেই ভারতে যেতে চাচ্ছেন না।

আইসিসির অভিযোগের ব্যাপারে বিসিবির কাছ থেকে কাল নিশ্চিত করে কিছু জানা যায়নি। বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসানকে একাধিকবার চেষ্টা করেও মুঠোফোনে পাওয়া যায়নি। মিডিয়া কমিটির প্রধান জালাল ইউনুস বলেছেন, এ রকম কিছু তাঁর জানা নেই। প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন চৌধুরীর বক্তব্য, এ ব্যাপারে তাঁদের কাছে কোনো তথ্য নেই। এ নিয়ে সাকিবের সঙ্গেও একাধিকবার কথা বলার চেষ্টা করেছে । কিন্তু তিনি ফোন ধরেননি, জবাব দেননি মুঠোফোনে পাঠানো খুদে বার্তারও।

১১ দফা দাবিতে খেলোয়াড়দের ডাকা ধর্মঘটকে কেন্দ্র করে গত কয়েক দিনে সাকিবের সঙ্গে বিসিবির সম্পর্কের বেশ অবনতি ঘটে। এর মধ্যেই বিসিবির নিয়ম ভেঙে সাকিব একটি মুঠোফোন কোম্পানির পণ্যদূত হয়ে আগুনে ঘি ঢালেন। গত পরশু দেওয়া সাক্ষাৎকারে এসব নিয়ে সাকিবের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। তাঁর কথায়ও ইঙ্গিত ছিল, সাকিব হয়তো শেষ পর্যন্ত ভারত সফরে যাবেন না। কারণটা নির্দিষ্ট করে না বললেও নাজমুল হাসান বলেছেন, আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই সবাই সবকিছু জানতে পারবেন।

তিনটি টি-টোয়েন্টি ও দুটি টেস্ট খেলতে বাংলাদেশ দল কাল সন্ধ্যায় দিল্লির উদ্দেশে দেশ ছাড়বে। সাকিবকে অধিনায়ক করে এরই মধ্যে টি-টোয়েন্টি সিরিজের দল ঘোষণা করেছে বিসিবি। তবে টেস্ট সিরিজের দল ঘোষিত হয়নি এখনো। বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা প্রধান আকরাম খান মিরপুরে কাল সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, টেস্টের দল ঘোষণা করতে আরও দু-তিন দিন সময় লাগবে। দেরিটা যে সাকিবের জন্যই, সেটি বোঝাই যাচ্ছে। ব্যক্তিগত কারণে তামিম ইকবাল সিরিজ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ায় এবং মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন চোটের কারণে সিরিজ থেকে ছিটকে যাওয়ায় কিছু পরিবর্তন আসবে টি-টোয়েন্টি দলেও।

পরিবর্তনের তালিকায় সাকিবের বিকল্প হিসেবে কেউ দলে এলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। শোনা যাচ্ছে, সাকিবের যাওয়া না হলে টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পেতে পারেন মোসাদ্দেক হোসেন বা লিটন দাস। টেস্ট সিরিজে দলকে নেতৃত্ব দিতে পারেন মুশফিকুর রহিম বা মুমিনুল হক।

মোহাম্মদ ফরিদ,কক্সবাজার থেকে: রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে বৈধ কাগজপত্র বিহীন আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থার হয়ে কাজ করছিলেন এমন ১৬ জন বিদেশি নাগরিককে আটক করে র্যাব-৭। ১৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বিকেলে একটি যৌথ চেকপোস্টে...

ফেসবুকে আমাদের সাথে থাকুন

কক্সবাজার প্রতিনিধি।। পর্যটন নগরী কক্সবাজারের বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন ও পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন। রবিবার (৬ অক্টোবর) সন্ধ্যায় কালী বাড়ি, সরস্বতি বাড়ি, বঙ্গপাহাড়,...



Logo

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

 
Shares